টাইগারদের হারিয়ে র‍্যাঙ্কিংয়ে ১ নম্বরে ফেরার সুযোগ প্রোটিয়াদের

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭ | ৯ কার্তিক ১৪২৪

টাইগারদের হারিয়ে র‍্যাঙ্কিংয়ে ১ নম্বরে ফেরার সুযোগ প্রোটিয়াদের

পরিবর্তন ডেস্ক ৫:৪০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১২, ২০১৭

print
টাইগারদের হারিয়ে র‍্যাঙ্কিংয়ে ১ নম্বরে ফেরার সুযোগ প্রোটিয়াদের

সামনে ওয়ানডে সিরিজ। সিরিজটায় বাংলাদেশের বিপক্ষে ২-০ তে লিড নিতে পারলেই অনেক কিছু হয়ে যায়। দক্ষিণ আফ্রিকা তাতে ভগ্নাংশের ব্যবধানে ভারতের চেয়ে বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে যাবে। এরপর ৩ ম্যাচের সিরিজের প্রতিটি খেলা জিতে ৩-০ তে বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশ করতে পারলে স্বাগতিকদের পয়েন্ট হবে ১২১। তার মানে দক্ষিণ আফ্রিকার সামনে দারুণ সুযোগ। কদিন আগে হারানো বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ের ১ নম্বর জায়গাটা ভারতের হাত থেকে কেড়ে নিতে মাশরাফির দলকে তাদের ৩-০ তে হারানোর লক্ষ্য নির্ধারণ করতে হচ্ছে।

এই মাসের শুরুতেই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪-১ এ সিরিজ জিতলো ভারত। দেশের মাটিতে। তাতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে টপকে ১২০ পয়েন্ট নিয়ে ভারত দখল করলো ওয়ানডের সিংহাসনটা। দক্ষিণ আফ্রিকার পয়েন্ট ছিল ১১৯। ওই পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ শুরু করছে ১৫ অক্টোবর। সেদিন কিম্বার্লিতে ম্যাচ। ১৮ অক্টোবর দ্বিতীয় ওয়ানডে পার্লে। আর ২২ অক্টোবর শেষ ম্যাচটি ইস্ট লন্ডনে।

কিন্তু বাংলাদেশকে ৩-০ তে হারানোর পরও ওই এক নম্বর জায়গায় উঠে তা ধরে রাখার উপায় নাও থাকতে পারে প্রোটিয়াদের। বাংলাদেশের বিপক্ষে শেষ ওয়ানডের দিনই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ওয়ানডের সিরিজ শুরু করবে ভারত। নিজেদের মাটিতে। প্রথম ওয়ানডে সেদিন ভারত না জিততে পারলে সমস্যা নেই প্রোটিয়াদের। এক নম্বরটা তাদের। কিন্তু ওই ম্যাচ ভারত জিতলে ১২১ পয়েন্ট হবে তাদেরও। আর তাতে আবার ভগ্নাংশের ব্যবধানে ভারত হয়ে যাবে এক নম্বর। আবার দক্ষিণ আফ্রিকা ৩-০ তে জিতলে এবং ভারত ৩-০ তে জিততে না পারলে ঝামেলা বিরাট কোহলিদের। তারা দুই নম্বর হয়ে যাবে। দক্ষিণ আফ্রিকা ১।

বাংলাদেশের পয়েন্ট এখন ৯৪। তারা ৩-০ তে হারলে ৯২ হবে, ২-১ এ হারলে ৯৫ পয়েন্ট হবে, ২-১ এ জিতলে ৯৭ এবং ৩-০ তে জিতলে ১০০ পয়েন্ট হবে। ১৩ থেকে ২৩ অক্টোবর শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তান ৫ ওয়ানডে সিরিজ। সেখানে ৫-০ তে জিতলে পাকিস্তানের হবে ৯৯। ৫-০ তে হারলে হয়ে যাবে ৮৯। এখন তারা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ে ৬ এ। বাংলাদেশের ঠিক ওপরে। বাংলাদেশ ৭। দুই সিরিজের হিসেব নিকেশে বাংলাদেশের ওপরই বেশি নির্ভর করছে বেশিটা।

ক্যাট

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad