বাংলাদেশ সিরিজের আগে মরকেলের চাপে দক্ষিণ আফ্রিকা!

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭ | ৯ কার্তিক ১৪২৪

বাংলাদেশ সিরিজের আগে মরকেলের চাপে দক্ষিণ আফ্রিকা!

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:০৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৭

print
বাংলাদেশ সিরিজের আগে মরকেলের চাপে দক্ষিণ আফ্রিকা!

মাত্রই প্রধান কোচের দায়িত্ব নিয়েছেন ওটিস গিবসন। আর দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডও দলটাকে নতুন করে সাজাতে উঠেপড়ে লেগেছে। এর মধ্যে তাদের দেশেই ২৮ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের বিপক্ষে শুরু টেস্ট সিরিজ। তারপর ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টি। কিন্তু তার আগেও কোচ ও বোর্ডকে রীতিমতো চাপে ফেলে দিলেন ফাস্ট বোলার মরনে মরকেল! খবর, ২০১৯ বিশ্বকাপে তার খেলা নিশ্চিত না হলে 'কলপাক' চুক্তিতে চলে যাবেন। দেশের হয়ে না খেলে উড়ে যাবেন ইংল্যান্ডে, আজন্মের মতো।

'কলপাক' আইন এখন প্রোটিয়াদের জন্য বড় মাথাব্যথার কারণ। সাম্প্রতিক সময়ে কয়েকজন ক্রিকেটারকে হারিয়েছে তারা। যারা ইংলিশ পাসপোর্টের জন্য চলে গেছেন। হয়তো দেশের কোনো অবহেলা কিংবা অনিশ্চয়তা তাদের স্পর্শ করে গেছে। মাতৃভূমি ছাড়ার কথা তাই আসছে ৩৩ বছরের মরকেলের মনেও। নিজের ওয়ানডে ভবিষ্যৎ জানতে চান তিনি। তাই কথা বলবেন নতুন কোচের সাথে। তার কি পরিকল্পনা সেটাও তো জানতে হবে। অভিজ্ঞ ফাস্ট বোলার সিদ্ধান্ত নেবেন সব দিক বিবেচনা করে।

গত সপ্তাহে ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান গিবসন যখন দায়িত্ব নিলেন তখন একটা দিকে খুব জোর দিয়েছেন। বলেছেন, তার লক্ষ্য হলো দক্ষিণ আফ্রিকা দলকে বিশ্ব র‍্যাঙ্কিংয়ের ১ নম্বরে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া। এরপর ২০১৯ বিশ্বকাপ শিরোপা ইংল্যান্ড থেকে দক্ষিণ আফ্রিকায় নিয়ে আসা। চোকার দক্ষিণ আফ্রিকা কখনো বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি। সেই ১৯৯৮ সালের মিনি বিশ্বকাপের শিরোপাই তাদের একমাত্র অর্জন।

মরকেল ৭৮টি টেস্ট, ১১২টি ওয়ানডে ও ৪৪টি টি-টুয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন। বলেছেন, ভবিষ্যৎ সম্পর্কে অন্ধকারে থেকে সাইডলাইনে বসে থাকতে রাজি নন, 'আমি ৩২। ওটিসের সাথে আলাপ করে বুঝতে হবে সাদা বলের ক্রিকেটে আমার জায়গাটা কোথায়, আসলে ২০১৯ এ আমার জন্য কোনো জায়গা আদৌ আছে কি না। যোগাযোগ ঠিক থাকলে সব পরিষ্কার থাকে। আগামী দুই বছর না খেলে সাইডলাইনে বসে থাকা আমার পক্ষে সম্ভব না। আগামী দুই বছরের জন্য তাদের ভাবনা কি তা আমার জানা দরকার।'

বাংলাদেশ সিরিজের জন্য গিবসনের ঘোষিত ১৩ সদস্যের টেস্ট দলে মরকেল আছেন। ডেল স্টেইন, ভারনন ফিল্যান্ডার, ক্রিস মরিস ইনজুরির কারণে নেই। মরকেলকেই প্রোটিয়া ফাস্ট বোলিংয়ের নেতৃত্ব দিতে হবে সামনে থেকে। সামনে আরো ব্যস্ত মৌসুম। এই সময়ে মরকেলের এই হুমকি অবশ্যই প্রোটিয়াদের জন্য বাড়তি মাথাব্যথার কারণ।

ক্যাট

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad