স্লেজিংয়ে খুব মজা পান সাব্বির, ছাড়েননি অস্ট্রেলিয়াকেও!

ঢাকা, শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭ | ১ পৌষ ১৪২৪

স্লেজিংয়ে খুব মজা পান সাব্বির, ছাড়েননি অস্ট্রেলিয়াকেও!

পরিবর্তন প্রতিবেদক, চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম থেকে ৬:৫৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০৪, ২০১৭

print
স্লেজিংয়ে খুব মজা পান সাব্বির, ছাড়েননি  অস্ট্রেলিয়াকেও!

স্লেজিং। অস্ট্রেলিয়া দল যেটিকে শিল্পের পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছিল একটা সময়ে। স্টিভ ওয়াহর বিশ্বজয়ী দল সম্ভবত স্লেজিংয়েও বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ছিল! এখনকার অস্ট্রেলিয়াও কম যায় না। স্টিভেন স্মিথের দলের খেলোয়াড়রা নাকি সিংহের মতো দল বেধে ব্যাটসম্যানকে স্লেজিংয়ে বিদ্ধ করেন। একেক সময় একেক দল। কিন্তু সেই অস্ট্রেলিয়াকে পাল্টা স্লেজিংয়ে যে খেলার মতোই জবাব দিয়ে যাচ্ছে টাইগাররা তা খুব বোঝা যাচ্ছে। আর সোমবার চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম দিনের শেষে সাব্বির রহমান তো সাফ বলে গেলেন, স্লেজিং করলে খুব মজা পান ব্যাটিংয়ে। মনটা থাকে ফুরফুরে!

.

এদিন বিপর্যয়ের মধ্যে অধিনায়ক মুশফিুকর রহীমের সাথে দলকে টেনে নিয়ে যাওয়া মহামূল্যবান ১০৫ রানের ষষ্ঠ উইকেট জুটি সাব্বিরের। ক্যারিয়ার সেরা ৬৬ রান করে সাব্বির আউট। মুশফিক আছেন। আছেন নাসির। ৬ উইকেটে ২৫৩ রান নিয়ে ভয় উড়িয়ে দ্বিতীয় দিনের আগে প্রায় সমানে সমানই টাইগাররা।

১১৩ বলে ৬ চার এক ছক্কায় দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলে এমনিতে বেশ ফুরফুরে মেজাজে ছিলেন সাব্বির। ১১৭ রানে ৫ উইকেট ফেলে দেওয়ার পর এই জুটি ভাঙতে স্মিথের ফিল্ডাররা  সাব্বিরকে কথার বাণে বিদ্ধ করতে থাকেন।
 
মুখ সমানে চলেছে সাব্বিরেরও। সংবাদ সম্মেলনে অস্বীকার করেননি, গোপনও করতে চাননি। বরং স্লেজিং খেলার মজার একটা অংশ মেনে নিয়েই হাসিমুখে বলে দিলেন, ’খেলার মাঠে কারও সঙ্গে সম্পর্ক ভালো হয় না। ওরা স্লেজিং করে, আমিও করি। আমি ওদের সঙ্গে কথা বলি ফ্রি হওয়ার জন্যই। তেমন কিছু না। স্লেজিং করলে আমি আরও মজা পাই ব্যাটিংয়ে। উপভোগ করি স্লেজিং করলে। স্লেজিং ফিরিয়েও দেই। এটা আমি অনেক উপভোগ করি।'

ক্যাট

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad