হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পথে শ্রীলঙ্কা

ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ | ১ পৌষ ১৪২৪

হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পথে শ্রীলঙ্কা

পরিবর্তন ডেস্ক ৬:৩৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০১৭

print
হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পথে শ্রীলঙ্কা

ভারতের বিপক্ষে সিরিজে সবচেয়ে আশা জাগানো সকাল ছিল এই রোববারের সকালটাই। কিন্তু সেটিকেও দুঃস্বপ্নে রূপ দিয়ে দিলেন হার্দিক পান্ডিয়া। আট নম্বরে দারুণ ধ্বংসাত্মক এক সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন। ভারতকে দিয়েছেন প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহ। এরপর মোহাম্মদ শামি, কুলদিপ যাদবরা মিলে শ্রীলঙ্কাকে মাত্র ১৩৫ রানে গুটিয়ে দিলেন। ধাক্কা দিয়ে নামিয়ে দিলেন টানা দ্বিতীয় ম্যাচে ফলো অনের লজ্জার পথে। পাল্লেকেলের দ্বিতীয় দিন শেষে দেখা যাচ্ছে ভারতের ৪৮৭ থেকে এখনো ৩৩৩ পিছিয়ে স্বাগতিকরা। সিরিজের শেষ টেস্টটা দুদিন না যেতেই ইনিংস ব্যবধানের হার চোখ রাঙাচ্ছে লঙ্কানদের। সেই সাথে নিজেদের মাটিতে হোয়াইটওয়াশের শঙ্কাটা এসে দাঁড়িয়েছে ঠিক গা ঘেসে।

.

দ্বিতীয় ইনিংসে এর মধ্যে একটি উইকেট হারিয়ে ফেলেছে লঙ্কানরা। ১৯ রানে ১ উইকেট নিয়ে তৃতীয় দিন শুরু করবে তারা। এই টেস্টের ধারাক্রম বলছে অলৌকিক কিছু না ঘটলে তৃতীয় দিন টিকবে না স্বাগতিকরা। আর মাত্র ৯টি উইকেট তাদের হাতে। এই সিরিজে শামি, অশ্বিন, জাদেজার পর এখন চায়নাম্যান কুলদিপও জেগে উঠেছেন। বিরাট কোহলির দল তৃতীয় দিনেই জয় তুলে নিয়ে সিরিজটা ৩-০ তে জেতার উৎসবে মাততে চাইবে।

এই দিনটাকে দুই ভাগে ভাগ করা যায়। প্রথম ভাগটা ২৩ বছরের পান্ডিয়ার বীরত্বের। দ্বিতীয় ভাগটা ভারতের বোলারদের। শ্রীলঙ্কার জন্য আসলে এই গল্পে কেবলই হতাশা। ৬ উইকেটে ৩২৯ রানে ভারতের দিন শুরু। পান্ডিয়া তখন ১ রানে। ৪০০ রান পেরুতেই আরো দুই উইকেট নেই। পান্ডিয়ার ঝড় শুরু তার আগেই। সেটা টর্নেডোর আকার নেয় এবার। কুলদিপের (২৬) সাথে পান্ডিয়ার ছিল ৬২ রানের জুটি। এরপর শামিকে (৮) নিয়ে ২০ রান তোলার পর শেষ উইকেটে উমেশ যাদবকে (৩) অন্য প্রান্তে রেখে ৬৬ রানের পার্টনারশিপ গড়েন পান্ডিয়া। এক ওভারে ২৬ রানের ঝড় বাইয়ে দেন মালিন্দা পুষ্পকুমারার ওপর দিয়ে। ভারতীয় হিসেবে এক ওভারে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড এখন পান্ডিয়ার।

এর কিছুক্ষণের মাঝে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিটা তুলে নেন নিজের অভিষেক সিরিজে। ৮৬ বলের সেই সেঞ্চুরি ভারতের ইতিহাসের চতুর্থ দ্রুততম, অষ্টম ব্যাটসম্যান হিসেবে দ্রুততম। পান্ডিয়া শেষে ঠিক লাঞ্চের পরের ওভারে আউট। ৯৬ বলে তার ১০৮ অমর হয়ে রইবে। এই আকালে চায়নাম্যান লক্ষন সান্দাকান পান্ডিয়াসহ ৫ উইকেট শিকার করেছেন।

এরপর বল হাতে পেয়েই তোপ দেগেছেন শামি। দুই ওপেনার উপুল থারাঙ্গা (৫) ও দিমুথ করুনারত্নে (৪) দলের ২৪ রানের মধ্যেই শামির শিকার। কুশল মেন্ডিস (১৮) রান আউট হওয়ার পর পান্ডিয়া দারুণ মূল্যবান অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের (০) উইকেটটা তুলে নেন। ৩৮ রানে ৪ উইকেট নেই লঙ্কানদের। দিনেশ চান্ডিমাল (৪৮) ও নিরোশান দিকভেলা (২৯) প্রতিরোধ গড়ে ৬৩ রানের জুটি গড়েন। কিন্তু তারপরই লঙ্কান ইনিংস তাসের ঘর। ৩৪ রানে পড়ে শেষ ৬ উইকেট। যার ৪টি কুলদিপের, ২টি অশ্বিনের।

কোহলি ফলো অন করাতে পছন্দ করেন না। কিন্তু হাতে ৩৫২ রান আর শ্রীলঙ্কার ভঙ্গুর ইনিংস দেখে টানা দ্বিতীয় টেস্টে ফলো অন করানোর পথটাই বেছে নিলেন। প্রথম টেস্টেই কেবল করাননি। এবার উমেষ ফিরিয়েছেন থারাঙ্গাকে (৭)। নাইটওয়াচম্যান পুষ্পকুমারা ০ এবং করুনারত্নে ১২ রান নিয়ে অসম এক লড়াইয়ের শুরুটা করবেন তৃতীয় দিনের সকালবেলা। আগের টেস্টে ইনিংস ব্যবধানে হারার পর আবার সেই শঙ্কার সামনে তারা।

ক্যাট

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad