মাটিতে পা থাকলে পান্ডিয়াই হবেন আগামীর কপিল

ঢাকা, শনিবার, ১৯ আগস্ট ২০১৭ | ৪ ভাদ্র ১৪২৪

মাটিতে পা থাকলে পান্ডিয়াই হবেন আগামীর কপিল

পরিবর্তন ডেস্ক ৫:১৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০১৭

print
মাটিতে পা থাকলে পান্ডিয়াই হবেন আগামীর কপিল

অধিনায়ক বিরাট কোহলি বলেছিলেন, হার্দিক পান্ডিয়ার মাঝে তিনি ভারতের বেন স্টোকসকে দেখেন। আর এবার যে কীর্তি গড়লেন পান্ডিয়া পাল্লেকেলে টেস্টে তাতে ভারতীয়দের মন ভরে গেল। বহুদিন ধরে একজন কপিল দেবের খোঁজ ভারতীয়দের ক্রিকেটে। দেশটির প্রধান নির্বাচক মনে করছেন সেই খোঁজ এবার শেষ হলো। সাফল্যে ভেসে না গিয়ে মাটিতে পা রাখলে পান্ডিয়াই হবেন ভারতের আগামীর কপিল দেব।

রোববার ভারতের প্রথম ইনিংসের সংগ্রহটা তেমন বড় হওয়ার কথা ছিল না। কিন্তু আট নম্বর ব্যাটসম্যান পান্ডিয়া আগের দিন এক অংকে অপরাজিত ছিলেন। আরো দুই ব্যাটসম্যান গেলেন। তারপর শেষ দুই ব্যাটসম্যানকে অন্য প্রান্তে রেখে কি ঝড়টাই না তুললেন পান্ডিয়া! ২৩ বছরের ব্যাটসম্যান লঙ্কান বোলারদের চোখের পানি নামিয়ে ৮৬ বলে সেঞ্চুরি করে ফেললেন। ভারতের ইতিহাসের চতুর্থ দ্রুততম সেঞ্চুরি। অষ্টম ব্যাটসম্যান হিসেবে ভারতের দ্রুততম। এক ওভারে ভারতীয় হিসেবে সর্বোচ্চ ২৬ রান নেওয়ার রেকর্ডও গড়েছেন। অভিষেক টেস্ট সিরিজে ফিফটির পর এবার চমকে দেওয়া সেঞ্চুরি পান্ডিয়ার। যেটি তার ক্যারিয়ারের প্রথম আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি।

পান্ডিয়া ৯৬ বলের তাণ্ডবে ১০৮ রান করে থেমেছেন। মেরেছেন ৮টি চার ও ৭টি ছক্কা। ভারত প্রথম ইনিংসে পেয়েছে ৪৮৭ রান। আর এসব দেখে ভারতের সাবেক বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান বীরেন্দর শেবাগের টুইট, 'কি অবিশ্বাস্য সেঞ্চুরি হার্দিক পান্ডিয়ার। অসাধারণ কাজ করেছ আমার কুংফু পান্ডিয়া। মজা পেলাম।'

আর নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যান এমএসকে প্রসাদ তো দারুণ স্বস্তি পেলেন। তিন সংস্করণের ক্রিকেটেই পান্ডিয়াকে খেলাচ্ছেন। এই টেস্ট সিরিজে তার অভিষেক টি-টুয়েন্টি ও ওয়ানডে খেলে ফেলার পর। সবকিছু দেখেশুনে প্রসাদ বলেছেন, 'তার পা যদি মাটিতে থাকে তাহলে শিগগিরই তাকে আমরা কপিল দেবের সাথে তুলনা হতে দেখবো।'

১৯৯৪ সালে ভারতের ইতিহাসের সেরা অল রাউন্ডার কপিল দেব অবসর নিয়েছেন। তারপর তার মতো একজন অল রাউন্ডার আর পায়নি ভারত। ইরফান পাঠান, স্টুয়ার্ট বিনিরা আশা জাগিয়েও প্রতিষ্ঠিত অল রাউন্ডার হতে পারেননি। প্রতিভাবান যুবা পান্ডিয়ার মাধ্যমে কি ভারতের সেই খোঁজ কার্যক্রম শেষ হলো? প্রসাদের জবাব, 'হ্যাঁ। আমি খুব খুশি যে হার্দিকের মাঝ দিয়ে আমাদের খোঁজার কার্যক্রম সফলভাবে শেষ হলো।'

বরোদার ছেলে পান্ডিয়া ২০১৫ সালে আইপিএল দিয়ে চোখ কাড়েন। খেলেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে। তারপর ২০১৬'র শুরু থেকে টি-টুয়েন্টি খেলছেন। ওই বছরের শেষে ওয়ানডে দলেও ঢুকে পড়েন। এর মাঝে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ ও আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলেছেন। দুই সংস্করণের ক্রিকেটেই অল রাউন্ডার হিসেবে নিজেকে করেছেন প্রতিষ্ঠিত। এবার টেস্টে সুযোগ পেয়েই অভিষেক সিরিজে হই চই ফেলে দিলেন। এমন আগ্রাসী অল রাউন্ডার তো আসলে সব দলই চায়।

ক্যাট

print
 
nilsagor ad

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad