ভেতরে-বাইরে তামিমের কাছ থেকে শিখছেন

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ জুলাই ২০১৭ | ৬ শ্রাবণ ১৪২৪

ভেতরে-বাইরে তামিমের কাছ থেকে শিখছেন

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৭:২৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৭

print
ভেতরে-বাইরে তামিমের কাছ থেকে শিখছেন

সেই ছেলেবেলা থেকে মারকুটে ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও তার অভিষেক পিঞ্চ হিটার হিসেবে। উইকেটে নেমেই বোলারদের শাসন করাই ছিল তার কাজ। সেই তামিম আজ অনেকটাই বদলে গেছেন। অনেক বেশি ধীর-স্থির। অবশ্য প্রয়োজনে আগ্রাসী রূপ নিতে পিছ পা হন না। দেশের সেরা ব্যাটসম্যান, দলের ভরসার নামও। ব্যাটিংয়ে নেমে আগে বোঝার চেষ্টা করেন উইকেট। এরপর পরিস্থিতি। তামিমের মতো সৌম্য সরকারের অভিষেকটাও আগ্রাসী ব্যাটসম্যান হিসেবেই। তবে তামিমকে খুব কাছ থেকে দেখতে দেখতে দেশের সেরা ব্যাটসম্যানের একটা প্রভাব পড়েছে সৌম্যর ওপর। ২৪ বছর বয়সী এই ওপেনার তার ওপেনিং পার্টনারের মতোই একটু একটু করে নিজেকে বদলাতে চান। নিজেই বলছেন, যা শিখছেন তার প্রায় সবটাই তামিমের কাছ থেকে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বিশেষ করে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে তামিমের প্রায় নিয়মিত ওপেনিং সঙ্গী সৌম্য। তামিম যখন ব্যাট করেন তখন অপর প্রান্ত থেকে তাকে খুব খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে পর্যবেক্ষণ করেন। এভাবেই সিনিয়র ও দেশের ইতিহাসে সব সংস্করণে সবচেয়ে বেশি রানের মালিক তামিমকে দেখে শিখতে থাকেন সৌম্য।

‘তার কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। তিনি যখন স্ট্রাইকে থাকে আমি তখন তার খেলা দেখি, আর চিন্তা করি আমি এই বলটাকে কি করতাম! ওনার কাছে মাঠের বাইরে কিংবা ভেতরে শেখার চেষ্টা করি। তার আগের হাইলাইটসগুলো আমি দেখি। আগে কিভাবে আক্রমণাত্মক খেলতেন। কিছু নিচ্ছি; হয়তো বোঝা যাচ্ছে না-’ দেশের আরেক ড্যাশিং ব্যাটসম্যানের সরল স্বীকারোক্তি।

দলের বাজে পরিস্থিতিতেও সৌম্য প্রায় আউট হন দৃষ্টিকটুভাবে। বিষয়টি পোড়ায় তাকে। তিনিও চান তামিমের মতো দায়িত্ব নিয়ে খেলতে। তামিমের পরিবর্তনটা কাছ থেকেই লক্ষ্য করেছেন এ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান, ‘তামিম ভাই আগে যেভাব খেলতেন এখন অনেকটাই আলাদা। এখন অনেক পরিণত হয়েছেন। দলের পরিস্থিতি উনি খুব দ্রুত ধরতে পারেন।’

তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খুব একটা অভিজ্ঞতা এখনো হয়নি সৌম্যর। ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে অভিষেক তার। ২০১৫ বিশ্বকাপ থেকে উত্থাণ। এরপর থেকে নিয়মিতই আছেন দলের সঙ্গে। আর তামিম খেলেন সেই ২০০৭ থেকে। অভিজ্ঞতায় অনেক এগিয়ে তিনি। তবে সৌম্যের মনে হয়তো এই সুপ্ত আশা, তামিমের মতোই অনেক ম্যাচ খেলবেন কিংবা তাকে ছাড়িয়ে যাবেন। সংবাদ সম্মেলন ছেড়ে যাওয়ার আগে যে ক্যারিয়ারে '৩০০' ওয়ানডে খেলার স্বপ্নের কথাও জানিয়ে গেলেন তিনি!

আরটি/ক্যাট

print
 

আলোচিত সংবাদ