‘সাকিবকে দেখতাম হেডফোন লাগিয়ে বসে থাকতে’

ঢাকা, বুধবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৭ | ৩ কার্তিক ১৪২৪

‘সাকিবকে দেখতাম হেডফোন লাগিয়ে বসে থাকতে’

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৭:১৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৩, ২০১৭

print
‘সাকিবকে দেখতাম হেডফোন লাগিয়ে বসে থাকতে’

ওস্টারশায়ারের হয়ে ২০১১ সালে নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ার শেষ করেন বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৯ দলের নতুন কোচ ডেমিয়েন রাইট। সে বছর দলটির হয়ে কাউন্টি ক্রিকেটে খেলেছিলেন বাংলাদেশ দলের তথা বিশ্বের এক নম্বর অল-রাউন্ডার সাকিব আল হাসান। দুইজন এক সঙ্গে না খেললেও একই ড্রেসিং রুম শেয়ার করেছেন। আর তখনই সাকিবের সঙ্গে রাইটের চেনা জানা।  অধিকাংশ সময় সাকিবকে কানে হেডফোন লাগিয়ে চুপচাপ বসে থাকতে দেখতেন রাইট। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের সঙ্গে স্মৃতি তুলে ধরতেই এমন কথা বলেন এ অস্ট্রেলিয়ান কোচ।

কিছুদিন আগেই বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কোচের দায়িত্ব নিয়েছেন রাইট। মাত্র একদিনের ঝটিকা সফরে চুক্তি সই করেই ফিরে যান দেশে। রোববার রাতে বাংলাদেশে এসেই সোমবার সকালে যুবা টাইগারদের নিয়ে নেমে পড়লেন অনুশীলনে। অনুশীলন শেষে কাউন্টিতে সাকিবের সঙ্গে একই ড্রেসিং রুম শেয়ারের স্মৃতি তুলে ধরে পরিবর্তন ডট কমকে রাইট বললেন, ‘আমার মনে আছে আমি যখন ওস্টারশায়ারে খেলতাম তখন আমাদের দলে সাকিব আল হাসান ছিল। সে সব সময় কানে একটা হেডফোন লাগিয়ে রাখতো। এক কোনায় চুপচাপ বসে থাকতো।’

২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রথম আইসিসি অল-রাউন্ডার র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ওঠেন সাকিব। এর দুই বছর পর কাউন্টি ক্রিকেট খেলতে যান। সেখানেই পরিচয় ডেমিয়েন রাইটের সঙ্গে। সাকিব তখন ২৩ বছরের টগবগে যুবক। দুইবার বাংলাদেশে এলেও এখন পর্যন্ত সাকিবের সঙ্গে দেখা হয়নি রাইটের। কাউন্টিতে খেলার পর থেকে আর কথাও হয়নি দুজনার। তাই বিশ্বসেরা এ তারকার সঙ্গে দেখা করতে মুখিয়ে আছেন এ অস্ট্রেলিয়ান, ‘সে (সাকিব) তখন অনেক তরুণ ছিল। তখনই বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডার। এখনও আছে। সে খুবই মেধাবী খেলোয়াড়। দলের বড় সম্পদ। তবে সে খুবই মজার একটা ছেলে। তার সাথে আমার বেশ কিছু ভালো স্মৃতিও আছে। আমি তার সঙ্গে দেখা করার জন্য মুখিয়ে আছি।’

১৯৯৭ সালে তাসমানিয়া টাইগার্সের হয়ে ক্রিকেট ক্যারিয়ার শুরু করা রাইট শেষ প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেন এই দশকেরই শুরুতে। ক্যারিয়ারের লম্বা সময় শুধু ওস্টারশায়ারই নয় খেলেছেন নর্দাম্পটনশায়ার, গ্লামারগন, সাসেক্স ও সমারসেটের মতো ঐতিহ্যবাহী কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবে। ১২৩টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলে ফাস্ট মিডিয়াম বোলিংয়ে ৪০৬টি উইকেট শিকার করেছেন এই অল-রাউন্ডার। পাশাপাশি রান করেছেন ৩৮২৪। ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার পর ২০১১ সালেই মেলবোর্ন স্টার্সের বোলিং কোচের দায়িত্ব নেন রাইট। এরপর ২০১২ সাল থেকে বিগ ব্যাশের দল হোবার্ট হ্যারিকেনের প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করছেন।

আরটি/ক্যাট

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad