একটা কেন? অনেক সুযোগই আশা করি : এনামুল হক বিজয়

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৭ | ২ কার্তিক ১৪২৪

একটা কেন? অনেক সুযোগই আশা করি : এনামুল হক বিজয়

রামিন তালুকদার ৯:১৮ অপরাহ্ণ, মে ১৬, ২০১৭

print
একটা কেন? অনেক সুযোগই আশা করি : এনামুল হক বিজয়

২০১৫ সালের বিশ্বকাপটা বাংলাদেশের জন্য ছিল আশীর্বাদ। সেবার কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নেওয়ার পর থেকেই দারুণভাবে বদলে গেছে টাইগাররা। একের পর এক জয় তুলে বিশ্বক্রিকেটে আজ প্রতিষ্ঠিত একটি দল বাংলাদেশ। কিন্তু ওই আসরটা যেন অভিশাপ হয়েই এসেছিল এনামুল হক বিজয়ের জন্য। বিশ্বকাপের মাঝেই ইনজুরিতে পড়ে দেশে ফিরতে হয় তাকে। এরপর তার জায়গায় খেলতে নেমে একাদশে দারুণ পারফরম্যান্স করে যাচ্ছেন সৌম্য সরকার-ইমরুল কায়েসরা। তাই টিম কম্বিনেশনের কারণে দলে আর জায়গাটা ফেরত পাননি বিজয়। মাঝে টি-টুয়েন্টিতে সুযোগ পেলেও মেলে ধরতে না পারায় একরকম ব্রাত্যই হয়ে আছেন এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। তবে সাম্প্রতিক সময়টা দুর্দান্ত কাটাচ্ছেন বিজয়।  বিপিএল-বিসিএলে ভালো করার পর ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে ব্যাট হাতে সেরা পারফর্মার তিনি। আশা করছেন এবার জাতীয় দলের দ্বার উম্মুক্ত হবে। আর শুধু একটি নয়, অনেকগুলো সুযোগই আশা করছেন এ নবীন। নিজের স্বপ্ন নিয়ে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন পরিবর্তন ডট কমের প্রতিবেদক রামিন তালুকদারকে। তার উল্লেখযোগ্য অংশ তুলে ধরা হলোঃ

পরিবর্তন : প্রিমিয়ার লিগটা দারুণ যাচ্ছে, এখন আপনি সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। কেমন লাগছে?

বিজয় : অবশ্যই খুব ভালো। এ বছরটা খুব ভালো যাচ্ছে। জাতীয় লিগে প্রায় সাড়ে চারশ রান করেছি। বিপিএলও মোটামুটি ভালো হয়েছে। এখন এখানেও খুব ভালো হচ্ছে। ভালো একটা প্রসেসের মধ্যে আছি। দিন দিন চেষ্টা করছি আরও উন্নতি করার।

পরিবর্তন :  এর জন্য কি বাড়তি কোন কাজ করতে হয়েছে?

বিজয় : অবশ্যই অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। নিজের ফিটনেসকে আর ভালো করার চেষ্টা করছি। খাওয়া দাওয়াও এখন নিয়ম মাফিক করছি। সঙ্গে মনঃসংযোগও বাড়িয়েছি। যাতে জাতীয় দলে আবার ফিরে আসতে পারি।

পরিবর্তন : জাতীয় দলে ফেরার পথে থাকা বেশ কিছু খেলোয়াড় রয়েছে আপনাদের দলে। ড্রেসিং রুমে এ নিয়ে কি আলোচনা হয়?

বিজয় : হ্যাঁ, আমাদের দলে বাদ পড়া কিছু খেলোয়াড় আছে। আমি, সৌরভ ভাই (মুমিনুল হক) আছি। নাসির হোসেন ভাই ছিল, সুযোগ পেয়েছেন। আবু হায়দার রনিও আছে। সবার সাথে আড্ডাবাজি, দুষ্টামি, অনেক মজার জিনিস হয়। অনেক গল্প হয়। দুষ্টামি, ফাজলামি এগুলো সবসময় চলে। আমার কাছে মনে হয় যে, এজন্যই আসলে দলটা ভালো ফলাফল করছে।

পরিবর্তন : জাতীয় দলে ফিরতে চান। কেন বাদ পড়েছেন সে ভুলগুলো কি ধরতে পড়েছেন? ধরতে পারলে সে সকল জায়গায় কি আপনি উন্নতি করছেন?

বিজয় : আসলে তেমন কোন সমস্যার কারণে আমি বাদ পড়িনি। দল যখন ভালো খেলছে তখন আমি কম্বিনেশনের কারণে বাদ পরে যাই। আমার জায়গায় যারা ঢুকেছে তারাতো ভালো খেলছে। এ কারণেই আমি বাদ। ২৭ ইনিংসে আমার সাড়ে নয়শত রান, ৩৫ অ্যাভারেজ। ভুলটুল থাকলে তো করতে পারতাম না। প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে ১২টা সেঞ্চুরি। আমার যা আছে তাই নিয়ে আরও ভালো কিছু করার চিন্তা করছি। কি ভুল আছে তা নিয়ে ভাবছি না।

পরিবর্তন : কিন্তু আপনার বিরুদ্ধে একটা অভিযোগ আছে আপনি নাকি একটু ধীর গতিতে ব্যাটিং করেন।  নিজের ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সকে প্রাধান্য দেন?

বিজয় : গেল দুই বছর থেকে যারা আমার ব্যাটিং দেখেনি তারা হয়তো বুঝতে পারবেনা। জাতীয় দলে আসার পরে সবাই আমার খেলা দেখবে তখন বুঝতে পারবে আমার খেলায় পরিবর্তন এসেছে। আর মানুষের কথায় কান দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছি অনেক আগেই। আসলে কারো কথায় কান দিয়ে লাভ নেই। নিজে চিন্তা করছি কিভাবে নিজের উন্নতি করা যায়, দলকে কিভাবে ভালো কিছু দেওয়া যায়। যদি দলের জন্য স্ট্রাইক রেট ২০০ রাখার দরকার হয় ২০০ করেই রাখবো, যদি ১০ করে রাখার দরকার হয় তবে ১০ করেই রাখবো।

পরিবর্তন : তার মানে আপনার ব্যাটিং অনেক পরিবর্তন হয়েছে। তাহলে কি এবার জাতীয় দলে একটা সুযোগ আশা করছেন?

বিজয় : সুযোগ দিলে একটা কেন দিবে, যেমন পারফরম্যান্স করছি আশা করি অনেক সুযোগই পাবো। পারফরমটা তেমনই করার চেষ্টা করছি যাতে অন্য সবার চেয়ে এগিয়ে থাকতে পারি। জাতীয় দল থেকে যখন বাদ পরেছি তখন ইনজুরির কারণে বাদ পড়েছি। এখনও ক্যারিয়ারের অনেক সময়ই বাকি, জাতীয় দলে ঢোকার সুযোগও আছে। আর আমিও স্বপ্নটা বড় করেই রেখেছি। আমি চেষ্টা করবো যেন ভালো কিছু করে জাতীয় দলে ফেরা যায়।

পরিবর্তন : ফেরার জন্য বিশেষ কোন সংস্করণকে টার্গেট করছেন?

বিজয় : বাংলাদেশে বিপিএল হয়েছে চারটা মৌসুম। এরমধ্যে তিন কি চার নম্বর সেরা ব্যাটসম্যান কিন্তু আমি। তার মানে টি-টুয়েন্টিতে আমি আল্লাহর রহমতে ভালো করছি। আর চারদিনের যে টুর্নামেন্ট হয় আমাদের, সেখানেও ১২/১৩টা সেঞ্চুরি। তার মানে বড় সংস্করণের ম্যাচও উপভোগ করছি। আর ওয়ানডেতে নিয়মিত পারফরম করছি। জাতীয় দলেও করেছি। তিন সংস্করণেই ফিরে আসার ইচ্ছা সবসময়। টেস্ট ক্রিকেটই বেশি উপভোগ করি। কারণ লম্বা রান করার সময় থাকে। আর দুইটা ইনিংস থাকে, একটা খারাপ করলে আরেকটাতে ভালো করার সুযোগ থাকে। তাই ইচ্ছে টেস্টে ম্যাচেই বেশি ভালো কিছু করবো। আর ওয়ানডে, টি-টুয়েন্টিতো আছেই।

পরিবর্তন : তার মানে আপনি টেস্ট ক্রিকেটকে প্রাধান্য দিচ্ছেন। এই সংস্করণে অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম কিপিং ছেড়ে দিয়েছেন, তার মানে একজন উইকেটকিপার হিসেবেও আপনার একটা সুযোগ থাকছে...

বিজয় : কিপিংটা আগাগোড়া সবসময়ই ভালো করি। এটাতে আমার বাড়তি আত্মবিশ্বাস কাজ করে। প্রিমিয়ার লিগেও ভালো হচ্ছে, বিপিএলতো আপনারা দেখেছেনই। বিসিএলে এবার ৬০০ ওভার কিপিং করেছি। কিপিং ভালোই উপভোগ করছি। যদি সুযোগ আসে তার জন্য প্রস্তুত আছি। তবে আমি জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছিলাম ব্যাটসম্যান হিসেবে, চেষ্টা থাকবে ব্যাটসম্যান হিসেবেই আবার দলে ফিরবো।

পরিবর্তন : নিজের ফিটনেস কেমন আছে?

বিজয় : খুব ভালো। ৫০ ওভার কিপিং করছি, ৫০ ওভার লম্বা ব্যাটিং করছি এই গরমে। তার মানে অবশ্যই ভালো। আর শীত হলে তো আর ভালো (হাসি)।

পরিবর্তন : এখন বর্তমান লক্ষ্যটা কি?

বিজয় : আমার প্রথম লক্ষ্য হচ্ছে দলকে (গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স) চ্যাম্পিয়ন করানো। আর দলকে চ্যাম্পিয়ন করতে হলে আমাদের ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সও ভালো করতে হবে। কারণ টপ অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা ভালো না করলে দল ভালো করবে না। দল চ্যাম্পিয়ন হলে দেখবেন আমাদের ব্যক্তিগত রানও অনেক বড় হয়ে গিয়েছে। একটাই লক্ষ্য দলের জন্য সেরাটা দেওয়া।

আরটি/এসএইচ

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad