আবার ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছে মিরপুর স্টেডিয়াম

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

আবার ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছে মিরপুর স্টেডিয়াম

পরিবর্তন ডেস্ক ৭:৪৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৮

print
আবার ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছে মিরপুর স্টেডিয়াম

গতবছর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের টেস্ট সিরিজ শুরু হয়েছিল মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। সেই ম্যাচটি জিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টেস্ট জয়ের রেকর্ড গড়েছিল বাংলাদেশ। তবে বাজে আউটফিল্ডের কারণে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) দুটি ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছিল ম্যাচটির ভেন্যু মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম। সর্বশেষ এই মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ সিরিজের শেষ টেস্টে মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। সেই ম্যাচের পর আবার একটি ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছে ভেন্যুটি। এতে পরপর দুই টেস্টে ডিমেরিট পয়েন্ট পাওয়ার ঘটনা ঘটল মাঠটিতে। আর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টের ভেন্যু চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামও ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছিল। অর্থাৎ, একই সিরিজে বাংলাদেশের দুটি মাঠ নিয়েই এমন ঘটনা ঘটল। একবছর পূর্ণ হওয়ার আগেই মিরপুরের ডিমেরিট পয়েন্ট দাঁড়িয়েছে তিনে। সামনে চার বছরের মধ্যে আরও দুটি ডিমেরিট পয়েন্ট পেলে এক বছরের জন্য আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজন করতে পারবে না বাংলাদেশের 'হোম অব ক্রিকেট' এই মাঠটি।

মিরপুরে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে দুই দলই নিজেদের দুই ইনিংসেই ব্যাট করেছে। দুই দলই নিজেদের দুই ইনিংসেই অল আউট হয়ছে। অর্থাৎ, ম্যাচে ৪০টি উইকেটই পড়েছে। দুই দল মিলে মোট সংগ্রহ করেছে ৬৮১ রান। এই ম্যাচে শ্রীলঙ্কা ২১৫ রানে শ্রীলঙ্কা হারিয়েছে বাংলাদেশকে। ফিফটি হয়েছে তিনটি, প্রতিটিই লঙ্কান ব্যাটসম্যানদের। যার দুটিই করেছেন রোশেন সিলভা। তার ব্যক্তিগত ৭০ রানের ইনিংসটিই দুই দল মিলিয়ে সর্বোচ্চ। এই পরিসংখ্যান থেকেই বোঝা যায় বোলাররা বিশেষত স্পিনাররা কতটা ছড়ি ঘুরিয়েছেন। দুই দল মিলে ৩০ উইকেটই গিয়েছে স্পিনারদের পকেটে। আর এতকিছু ঘটেছে টেস্টের বয়স ৩দিন পূর্ণ হওয়ার আগেই।

ম্যাচ রেফারি ডেভিড বুনের রিপোর্টে উঠে এসেছে এত বেশি স্পিন বান্ধব উইকেটের কথাই, 'প্রথম দিন থেকেই বল পিচের উপরিভাগ ভেঙে দিচ্ছিল। তাতে পুরো ম্যাচজুড়েই অসম বাউন্স দেখা গেছে। সাথে ছিল টার্ন যা মাঝে মাঝে ছিল খুবই প্রকট। ম্যাচে প্রতিদ্বন্দ্বীতা এনে দিয়েছিল পিচ কিন্তু তা বোলারদের পক্ষেই গিয়েছে। ফলে ব্যাটসম্যানরা ভাল করার যথার্থ সুযোগ পাননি।' এ কারণেই বুন মিরপুরের পিচকে 'সাধারণের চেয়ে নিম্নমানের' হিসেবে রেটিং দিয়েছেন। ফলে আরো একটি ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হয়েছে ভেন্যুটির কপালে।

সিরিজে আগের টেস্টে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা মিলে ১৫০০ এরও বেশি রান তুলেছিল, অথচ শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংই করেনি। বাংলাদেশ দুই ইনিংসে করেছিল যথাক্রমে ৫১৩ ও ৩০৭ রান। শ্রীলঙ্কা করেছিল ৭১৩ রান। দুই দল মিলে পাঁচ দিনে উইকেট পড়েছে ২৪টি। ম্যাচটিও হয়েছিল ড্র। সম্পূর্ণ ব্যাটিং উইকেটে বোলাররা কোনপ্রকার সাহায্য না পাওয়ায় একটি ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছিল চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী ক্রিকেট স্টেডিয়াম।

এসএম

 
.




আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad