‘গণতন্ত্র না থাকলে প্রবৃদ্ধি ধরে রাখা যায় না’

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৭ | ২ কার্তিক ১৪২৪

‘গণতন্ত্র না থাকলে প্রবৃদ্ধি ধরে রাখা যায় না’

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৫:১৬ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০১৭

print
‘গণতন্ত্র না থাকলে প্রবৃদ্ধি ধরে রাখা যায় না’

যুক্তরাজ্যের ‘অলস্টার ইউনিভার্সিটি’-র অধ্যাপক ড. সিদ্দিকুর রহমান ওসমানী বলেছেন, যে সব দেশে গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থা নেই, সেখানে কখনও কখনও প্রবৃদ্ধি ভালো হলেও তা দীর্ঘসময় ধরে রাখা যায় না। অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হলে একটি দেশে গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থা অপরিহার্য।

রাজধানীর ব্র্যাক-ইন সেন্টারে শনিবার সাউথ এশিয়ান নেটওয়ার্ক অব ইকোনমিক মডেলিং (সানেম) আয়োজিত দুইদিনব্যাপী অর্থনীতিবিদ সম্মেলন-২০১৭ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন। সানেমের এবারের সম্মেলনের বিষয়বস্তু ‘সামাজিক অন্তর্ভুক্তির জন্য প্রবৃদ্ধির ব্যবস্থাপনা’।

ভিনদেশী বিশ্ব বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলাদেশি এ অধ্যাপক বলেন, সিরিয়ায় এক সময় উচ্চ প্রবৃদ্ধির পথ রচনা হয়েছিল। কিন্তু বর্তমানে দেশটির অর্থনতি মুখ থুবড়ে পড়ে আছে। এটা হয়েছে গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থা না থাকার কারণে। গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থা থাকলে সিরিয়াকে এ সংকটের মধ্যে পড়তে হতো না।

তিনি বলেন, যে কোন দেশে গণতান্ত্রিক পরিবেশ বজায় থাকলে দেশটির প্রাতিষ্ঠানিক  সক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। একই সঙ্গে সকলের মতামতের ভিত্তিতে শান্তিপূর্ণ উপায়ে ক্ষমতার পরিবর্তন ঘটানো যায়।

অধ্যাপক ওসমানী বলেন, আমাদের সবাইকে গণতান্ত্রিক মানসিকতা তৈরি করতে হবে। এ জন্য এখন থেকেই প্রস্তুতি নিতে হবে। গণতন্ত্রের চর্চা শুরু করতে হবে এবং ধীরে ধীরে ওই চর্চাকে শক্তিশালী করে তুলতে হবে।

এ সময় যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টার ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ডেভিড হিউম বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল। সুতরাং উন্নত বিশ্বের দিকে না তাকিয়ে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় বাংলাদেশকে সকলের অনুকরণ করা উচিত।

সানেমের নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক সেলিম রায়হান বলেন, সম্মেলনের দুই দিনে মোট ১৩টি অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে। এসব অধিবেশনে অর্থনীতিবিদেরা মোট ২৬টি গবেষণাপত্র উপস্থাপন করা হবে।

সানেমের আয়োজনে শনি ও রোববার ঢাকায় অর্থনীতিবিদদের এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ‘সেকেন্ড সানেম অ্যানুয়াল ইকোনমিস্ট কনফারেন্স-২০১৭’ নামের এ সম্মেলনে বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও যুক্তরাজ্যের অর্থনীতিবিদরা অংশ নিয়েছেন।

এফএ/এ্রমডি

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad