ইনজেকশন দেয়ার পরই প্রসূতির মৃত্যু

ঢাকা, রবিবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২০ | ১৩ মাঘ ১৪২৬

ইনজেকশন দেয়ার পরই প্রসূতির মৃত্যু

নোয়াখালী প্রতিনিধি ৬:০৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৫, ২০১৯

ইনজেকশন দেয়ার পরই প্রসূতির মৃত্যু

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় বসুরহাট মা ও শিশু হাসপাতালে ভুল চিকিৎসার কারণে নুর নাহার (২৮) নামে এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। নিহত গৃহবধূ ৩ সন্তানের জননী ও ৮ মাসের গর্ভবতী ছিলেন।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে ওই উপজেলার বসুরহাট মা ও শিশু হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

মৃত নুরের নাহার উপজেলার চরকাঁকড়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ঠাডা আলা বাড়ির কামরুজ্জামানের স্ত্রী।

নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. রৌশন জাহান লাকীর প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী নার্স ইনজেকশন পুশ করার সাথে সাথে প্রসূতির মৃত্যু হয়।

নিহতের স্বজনদের দাবি, ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে।

ডা. রৌশন জাহান তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু হয়নি। বরং বড় কোন ডাক্তার দিয়ে ঘটনার তদন্ত করলে মৃত্যুর সঠিক কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে তিনি দাবি করেন।

বসুরহাট মা ও শিশু হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো.আব্দুল জলিল বলেন, হাসপাতালে রোগীকে সকাল ৮টার দিকে ভর্তি করা হয়ছে, এখানে তেমন কোন চিকিৎসা দেয়া হয় নাই এ রোগীর। এখানে ভুল চিকিৎসায় মৃত্যুর প্রশ্নই উঠে না।

কোম্পানীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এনিয়ে নিহতের স্বজনদের মধ্যে মারমুখি পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

তিনি আরো জানান, নিহত গৃহবধূর লাশ ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যাবে।

আইএইচএস/জেডএস

 

চট্টগ্রাম: আরও পড়ুন

আরও