২৬০টি দোকান পুড়ে ছাই, ব্যবসায়ীদের মাথায় হাত
Back to Top

ঢাকা, শনিবার, ৩০ মে ২০২০ | ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

২৬০টি দোকান পুড়ে ছাই, ব্যবসায়ীদের মাথায় হাত

পরিবর্তন প্রতিবেদক ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৮, ২০১৯

২৬০টি দোকান পুড়ে ছাই, ব্যবসায়ীদের মাথায় হাত

রাজধানীর মালিবাগের কাঁচাবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২৬০টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আর এতে প্রায় ৫ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছে মালিবাগ বাজার বণিক সমবায় সমিতি।

বৃহস্পতিবার সকালে আগুনে পুড়ে যাওয়া বাজারটিতে গিয়ে দেখা যায়, ব্যবসায়ীরা হতাশায় ভেঙে পড়েছেন। কেউ মাথায় হাত দিয়ে বসে আছেন, আবার কেউ পোড়া মালামালের স্তূপ থেকে আধপোড়া জিনিসগুলো উদ্ধার করছেন।

বৃহস্পতিবার ভোর ৫টা ২৭ মিনিটে মালিবাগ বাজারে আগুন লাগে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১৪টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানোর কাজ করে। ৬টা ৩৫ মিনিটের দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে বলে পরিবর্তন ডটকমকে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিস সদর দফতরের ডিউটি অফিসার মাহফুজ রিবেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, বাজারের পশ্চিম পাশের মুদির দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত। আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গে ফায়ার সার্ভিসকে ফোনে জানানো হলে, দ্রুতগতিতে ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে।

বাজারের মাছ বিক্রেতা কাজী সিরাজ বলেন, আমার দোকানে প্রায় ৭০ থেকে ৮০ হাজার টাকার ইলিশ মাছ ছিল। সব মাছ পুড়ে গেছে। এ ছাড়া বাজারের প্রতিটি মুদি দোকানে ৫০/৬০ লাখ টাকার মালামাল ছিল। প্রায় সব দোকানই পুড়ে গেছে।

মালিবাগ বাজার বণিক সমবায় সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মোহাম্মদ নুরুল হক নুরু বলেন, ২৬০টি দোকানের মধ্যে একটি দোকানও অবশিষ্ট নেই। মাছ, মাংস, ডিম, গরু, ছাগল, চাল, টিন সবই পুড়ে গেছে। নগদ টাকাও পুড়েছে। অন্তত ৫ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক (অপারেশন ও মেইন্টেনেন্স) দিলীপ কুমার ঘোষ বলেন, আগুনের ঘটনায় কোনো হতাহত হয়নি। আমরা অনেককেই উদ্ধার করতে পেরেছি। তদন্ত ছাড়া ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বলা যাবে না। তবে অন্তত ২০টি ছাগল পুড়েছে। বেশ কিছু দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আগুনের কারণ তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে। এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।

পিএসএস/আরপি
আরও পড়ুন...
যাত্রাবাড়ীর পর মালিবাগ কাঁচাবাজারে আগুন

 

: আরও পড়ুন

আরও