‘দণ্ডিত হওয়ায় আবেদন করলেও পাসপোর্ট পাবেন না তারেক’

ঢাকা, সোমবার, ২৮ মে ২০১৮ | ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

‘দণ্ডিত হওয়ায় আবেদন করলেও পাসপোর্ট পাবেন না তারেক’

পরিবর্তন প্রতিবেদক ১:২০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৬, ২০১৮

print
‘দণ্ডিত হওয়ায় আবেদন করলেও পাসপোর্ট পাবেন না তারেক’

দণ্ডিত হওয়ায় যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এখন আবেদন করলেও পাসপোর্ট পাবেন না বলে জানিয়েছেন ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল মো. মাসুদ রেজওয়ান। তিনি বলেন, তারেক রহমান সাজাপ্রাপ্ত আসামি। ১৯৭৬ সালের পাসপোর্ট আইন অনুযায়ী কোনো মামলায় সাজার মেয়াদ দুই বছরের বেশি হলে আসামিকে পাসপোর্ট দেওয়া হয় না। তাই আইন অনুযায়ী তাকেও আমরা পাসপোর্ট দেব না। 

বৃহস্পতিবার বেলা পৌনে ১১টায় পাসপোর্ট অধিদফতরে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। 

মাসুদ রেজওয়ান বলেন, তারেক রহমান ২০০৮ সালে দেশ ত্যাগ করেন। তখন তার পাসপোর্ট ছিল হাতে লেখা, মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট ছিল না। ওই পাসপোর্টের মেয়াদ ছিল ২০১০ সাল পর্যন্ত। পরে তিনি লন্ডনের বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে পাসপোর্টের মেয়াদ বাড়িয়ে নিয়েছিলেন। 

তিনি বলেন, ২০১৪ সালে তারেক রহমান লন্ডনের দূতাবাসে ওই পাসপোর্ট জমা দেন। এরপর তিনি নতুন করে পাসপোর্টের জন্য আর কোনো আবেদন করেননি। পাসপোর্ট ছাড়াই তিনি যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছেন। তবে কীভাবে সেখানে অবস্থান করছেন সেটা যুক্তরাজ্যের সরকারই জানে। 

এখন নতুন পাসপোর্টের আবেদন করতে হলে তারেক রহমানের ন্যাশনাল আইডি কার্ড লাগবে। ন্যাশনাল আইডি কার্ড তার নেই, এটা নিতে হলে অবশ্যই তাকে দেশে আসতে হবে বলেও জানান মাসুদ রেজওয়ান। 

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ডিজি জানান, পাসপোর্টের সঙ্গে নাগরিকত্বের কোনো সম্পর্ক নেই। বিদেশে অবস্থানকারী যে কোনো বাংলাদেশি পাসপোর্ট না থাকলেও দেশে ফিরতে পারেন। 

তিনি বলেন, এখন তারেক রহমান দেশে আসতে চাইলে বাংলাদেশ অ্যামবেসির মাধ্যমে তাকে ট্র্যাভেল পাস নিতে হবে। এটা স্বেচ্ছায় নিতে হবে, জোর করে দেয়া হবে না। আর না চাইলে সেটা তার ব্যাপার। তবে সরকার তাকে আনতে চাইলে কীভাবে আনবে এটা সরকারের ও আইনের ব্যাপার।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি লন্ডনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দেয়া যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, তারেক কীভাবে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন? গ্রিন পাসপোর্ট হস্তান্তর করে তিনি বাংলাদেশি নাগরিকত্ব বর্জন করেছেন।

এ মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ারকে উকিল নোটিশ পাঠান তারেক রহমান।

এরপরে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর পাসপোর্ট হস্তান্তরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি জানান, ২০১২ সালে তারেক রহমান ব্রিটেনে রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন করেছিলেন এবং এক বছরের মধ্যেই সেটি গৃহীত হয়।

পিএসএস/এসবি

 
.




আলোচিত সংবাদ