খালেদার রায়ের পরদিনও ঢাকায় আতঙ্ক কাটেনি

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

খালেদার রায়ের পরদিনও ঢাকায় আতঙ্ক কাটেনি

কাজী ইহসান বিন দিদার ৬:৩৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০১৮

print
খালেদার রায়ের পরদিনও ঢাকায় আতঙ্ক কাটেনি

দুর্নীতির মামলায় কারাবরণ করেছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বৃহস্পতিবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়।

এই মামলায় তার ছেলে ও বিএনপি সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ পাঁচ আসামিকে ১০ বছরের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড প্রদান করেছেন বিশেষ আদালত।

রায় ঘোষণার আগে থেকেই ব্যাপক সতর্কতা অবলম্বন করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। যার ধারাবাহিকতা শুক্রবার ছুটির দিনেও দেখা যায়।

রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে মোড়ে দেখা যায় পুলিশ, র‌্যাব ও সাদা পোশাকধারীদের বেশ সতর্ক অবস্থানে থাকতে।

আজও রাজধানীতে রাস্তায় গাড়ির সংখ্যা ও সাধারণ মানুষের উপস্থিতিও কম দেখা গেছে।

শুক্রবার সরেজমিন গুলিস্তান, পল্টন, প্রেসক্লাব, ধানমন্ডি, শাহবাগ, সদরঘাট এ স্থানগুলোতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা অত্যন্ত সতর্ক অবস্থানে আছেন।

বাচ্চাকে নিয়ে মিরপুরে আত্মীয়ের বাসায় যাচ্ছেন মুস্তাফিজুর রহিম। তিনি পরিবর্তন ডটকমে বলেন, অন্যান্য শুক্রবারের তুলনায় আজকের পরিস্থিতিটা একটু অন্যরকম। গতকাল খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেয়ার পর থেকে পরিস্থিতি বেশ থমথমে। শুক্রবার দিন মানুষ ঘুরতে বের হয়। কিন্তু আজ ভয়ে বের হচ্ছে না। আমিও বের হতাম না কিন্তু দাওয়াত আছে বলে বের হলাম।

ফার্মগেটের যাত্রী রাইসুল পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, অন্যান্য শুক্রবারের তুলনায় আজ ঢাকা শহর বেশি ফাঁকা। খালেদা জিয়ার রায়কে ঘিরে দেশ আবারো অস্থিতিশীল হতে পারে সেই আশঙ্কায় অনেকেই আতঙ্কে রাস্তায় বের হয়নি।

বিহঙ্গ পরিবহনের বাসচালক সুলতান বলেন, সকাল থেকেই একটা আতঙ্ক নিয়ে গাড়ি চালাচ্ছি। খালেদা জিয়া গ্রেফতার হয়েছেন। না জানি কি হয়। আমরা তো গরীব মানুষ। কাজ করেই খেতে হবে। নয়তো পেটে তো ভাত জুটবে না।

এ ব্যাপারে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া  পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি যেকোনও মূল্যে নিয়ন্ত্রণে রাখতে এখন বিশেষ ডিউটি করছে পুলিশ। পুরান ঢাকার কারাগারে, যেখানে বেগম খালেদা জিয়াকে রাখা হয়েছে সে এলাকা ঘিরেও নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। সকল সদস্য সতর্ক অবস্থানে আছেন।

এ বিষয়ে এডিশনাল আইজি সোহেলী ফেরদৌস পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, রাজধানী ঘিরে নেওয়া হয়েছে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা। সক্রিয় আছে গোয়েন্দারাও। পুরো পরিস্থিতি খুব কেয়ারফুলি মনিটর করা হচ্ছে। কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা হলেই কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। জনগনের জানমালের কোনো ধরনের ক্ষতি হতে দেওয়া হবে না।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আদালত বিএনপি চেয়াপারসন খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন। তাকে রাখা হয়েছে ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে।

কেইবিডি/এসবি

 
.

Best Electronics Products



আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad