পশু চিকিৎসালয়ের কর্মীকে পেটালেন নাসিরুদ্দিনের মেয়ে

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৯ ফাল্গুন ১৪২৬

পশু চিকিৎসালয়ের কর্মীকে পেটালেন নাসিরুদ্দিনের মেয়ে

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:৪৫ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৬, ২০২০

পশু চিকিৎসালয়ের কর্মীকে পেটালেন নাসিরুদ্দিনের মেয়ে

পশু চিকিৎসালয়ের দুই মহিলা কর্মীকে মারধর, অভিনেতা নাসিরুদ্দিশাহর মেয়ে হেবা শাহ বিরুদ্ধে দায়ের করা হলো অভিযোগ। মুম্বাইয়ের ভারসোভা থানা এলাকার এই পশু চিকিৎসালয়ের সিসিটিভি ফুটেজে ধরা পড়েছে দুই কর্মীকে হেবার মারধরের ভিডিও।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম জি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ১৬ জানুয়ারি হেবা শাহ তার বন্ধুর পোষা দুই বেড়ালকে নিয়ে ভারসোভার এই পশু চিকিৎসালয়ে যান।পশু চিকিৎসালয়ে নিজের পোষা দুই বেড়ালের নির্বীজকরণের জন্যই আগে থেকে এপ্যেন্টমেন্ট  নিয়ে রেখেছিলেন হেবার অভিনেত্রী বন্ধু সুপ্রিয়া শর্মা। তবে এই দিন কোনোভাবে সুপ্রিয়া শর্মা বেড়াল দুটিকে নিয়ে পশু চিকিৎসালয়ে না যেতে পারায়, হেবা শাহই সেখানে যান।

দুটি বেড়ালকে নিয়ে ১৬ জানুয়ারি দুপুর ২.৫০ মিনিটে ক্লিনিকে পৌঁছোন। কর্মীরা তাকে বলেন, ৫ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে কারণ ইতিমধ্যেই একটা অস্ত্রপচার চলছে। অভিযোগ, মাত্র কয়েকমিনিট অপেক্ষা করার পরই হেবা কর্মীদের উপর চেঁচামিচি শুরু করেন।

ক্লিনিকের কর্মীদের হেবা বলেন, আপনাদের জানা উচিত আমি কে? তাহলে আপনারা কিভাবে আমাকে এভাবে অপেক্ষা করাতে পারেন? এমনকি ক্লিনিকে পৌঁছনোর পর বেড়াল দুটিকে রিক্সা থেকে নামাতে আমাকে কেউ সাহায্য পর্যন্ত করেননি। হেবা চেঁচামিচি শুরু করার পর ক্লিনিকের এক কর্মী তাকে সেখান থেকে বেরিয়ে যেতে বলেন। আর এরপর উত্তেজিত হেবা এই মহিলা কর্মীর উপর হাত তোলেন।

এমনকি হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজে হেবার সেই মারধরের ভিডিও ধরা পড়েছে। যেখানে ক্লিনিকের দুই মহিলা কর্মীকে চড় থাপ্পর মারতেও দেখা গিয়েছে।

ভিডিও...

ঘটনার পরপর নাসিরুদ্দিন শাহ কন্যা হেবা শাহর বিরুদ্ধে থানায় জামিন অযোগ্য ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় হেবা শাহর মারধরের ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে।

এসকে

 

তারায় তারায়: আরও পড়ুন

আরও