বহুরূপের স্বস্তিকা…

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২০ | ১৬ মাঘ ১৪২৬

বহুরূপের স্বস্তিকা…

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:৪৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯

বহুরূপের স্বস্তিকা…

স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় বরাবরই স্পষ্টবাদী। মুখের উপর সত্যি কথা বলতে ভয় পান না। অন্যায় দেখলে আজ পর্যন্ত পিছিয়ে আসেননি তিনি। শুক্রবার ছিল তার জন্মদিন। জন্মদিনে মুম্বইতে মেয়ের কাছেই ছিলেন অভিনেত্রী। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এই সময়ের প্রতিবেদনে বলা হয়,  সাহসী চরিত্রের  জন্যই তিনি দর্শকের কাছে  জনপ্রিয়। সঙ্গে অভিনয় তো আছেই। ভক্তদের কাছে তিনি মহিয়সী নারী। স্বস্তিকা মানেই ছকভাঙা বিষয়। ভক্তদের নজর কেড়েছিল তার এ বছর দুর্গাপুজোর ফটোশ্যুট।

বাবা সন্তু মুখোপাধ্যায়ের দেওয়া ডাক নাম ভেবলিতেই তিনি বেশি পরিচিত। কাছের মানুষরা এই নামেই তাকে চেনেন।  তার স্কুল জীবন ছিল কড়া নিয়মে বাঁধা তবে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে তা অবশ্য কিছুটা ছন্নছাড়া হয়েছিল। মাত্র ১৮ বছর বয়সেই বিয়ে হয়ে যায় রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী প্রমিত সেনের সাথে।

যদিও  বিবাহিত জীবনে খুব একটা সুখের ছিলেন তিনি। কিন্তু মেয়ের সাথে তার সম্পর্ক একদম বন্ধুর মত। দুজনে একসঙ্গে ঘুরতে যান, আড্ডা মারেন, সিনেমা দেখেন... মেয়ের ঘুরতে যাওয়ার অন্যতম সঙ্গী হল মা।

টিভি সিরিয়াল দেবদাসী দিয়ে স্বস্তিকার  অভিনয় জগতের প্রবেশ। নৃত্য শিক্ষিকা তনুশ্রী শংকরের হাত ধরেই অভিনয় জগতে প্রবেশ করেন। নিজ অভিনয়ের গুণেই তাকে আর ফিরে তাকাতে হয়নি। এক আকাশের নীচে, প্রতিবিম্ব প্রভৃতি সিরিয়ালে স্বস্তিকা মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

২০০২ সালে হেমন্তের পাখি সিনেমায় পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের বিপরীতে অভিনয়ের মধ্যে দিয়েই বড় পর্দায় ডেবিউ হয় তার। ২০১২ সালে ভূতের ভবিষ্যতের কদলীবালার জন্য দর্শক তাকে নতুন ভাবে আবিষ্কার করেছেন। এর মধ্যে বলিউডে ডেবিউ হয়েছে তার।

২০১৪ সালে তিনি আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন। শোনা যায়, প্রেমিক সুমন মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা কাটাকাটির কারণে তিনি আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন।

এসকে/এইচকে

 

বলিউড ও অন্যান্য: আরও পড়ুন

আরও