ফিট থাকার রহস্য জানালেন অক্ষয়
Back to Top

ঢাকা, বুধবার, ৮ জুলাই ২০২০ | ২৩ আষাঢ় ১৪২৭

ফিট থাকার রহস্য জানালেন অক্ষয়

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:০২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০১৯

ফিট থাকার রহস্য জানালেন অক্ষয়

১৯৬৭ সালের ৯ সেপ্টেম্বর পাঞ্জাবের অমৃতসরে জন্ম অক্ষয় কুমারের। সে হিসেবে তার বয়স ঠিক ৫২ বছর। কিন্তু বয়সের ছাপ তার চোখে মুখে বা স্বাস্থ্য কোথাও পড়েনি।

পেশীযুক্ত শরীর বানাতে অধিকাংশ অভিনেতা যখন স্টেরয়েডের দিকে ঝুঁকে থাকেন, সেখানে বাইরে থেকে কোনওরকম স্টেরয়েড জাতীয় ওষুধ না খেয়েও কিভাবে অক্ষয় এমন মেদমুক্ত স্বাস্থ্য ধরে রেখেছেন?

ফিটনেস পরিকল্পনা ও ডায়েট চার্ট অক্ষয়ের সুস্বাস্থ্যের মূল রহস্য। দৈনন্দিন রুটিন এর ব্যাপারে অক্ষয় অন্যান্যদের চেয়ে আলাদা।

খুব তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়া থেকে শুরু করে ভোর পাঁচটার মধ্য ঘুম থেকে উঠে পড়েন। সমস্ত তারকাদের নির্দিষ্ট জিম ও ট্রেনার থাকলেও অক্ষয়ের কোন জিম ও ট্রেনার নেই। জিমে অক্ষয় যান এবং নিজের ইচ্ছামতো শরীরচর্চা করেন। যে দিন যেটা করতে ইচ্ছা করে, সেদিন সেটাই করেন তিনি।

তিনি মার্শাল আর্ট এবং কিক বক্সিংয়ে প্রশিক্ষিত। নিয়মিত তা অনুশীলন করেন। এর বাইরে সারাদিন ধরেই তিনি অবসর সময়কে কাজে লাগান। কখনও হাঁটেন, কখনও দৌঁড়ান, সিঁড়ি দিয়ে ওঠানামা করেন। শরীরচর্চা করার পর নিয়মিত যোগব্যায়াম এবং মেডিটেশন করেন। এনার্জি এবং গতি বাড়ানোর জন্য সপ্তাহে তিন দিন নিয়ম করে বাস্কেটও বল খেলেন।

স্বাস্থ্য বজায় রাখতে কোন রকম দোকানজাত সাপ্লিমেন্টের, প্রোটিন পাউডার, স্টেরয়েড অথবা ওষুধদের ওপরও নির্ভর করেন না অক্ষয়। ঔষধি গুণসমৃদ্ধ ভেষজ গাছ-পাতার ওষুধ খেয়ে থাকেন বিভিন্ন রোগের জন্য। চা, কফি, মদ, সিগারেট—  এসব ছুঁয়েও দেখেন না তিনি। সপ্তাহে শুধু রবিবার তার পছন্দের মিষ্টি খান। আর সপ্তাহের বাকি দিনগুলো খুব পরিমিত খান।

ব্রেকফাস্ট থেকে শুরু করে ডিনারেও স্বাস্থ্যসম্মত খাবার খেয়ে থাকেন অক্ষয়। আমলকির রস, আখরোট, স্যুপ এবং স্যালাডসহ বিভিন্ন রকমের সবজিও খান অক্ষয়।

এসকে

 

: আরও পড়ুন

আরও