দশ টাকার জন্য মন্দিরের সেবাইতের মৃত্যু
Back to Top

ঢাকা, শুক্রবার, ৩ এপ্রিল ২০২০ | ২০ চৈত্র ১৪২৬

দশ টাকার জন্য মন্দিরের সেবাইতের মৃত্যু

ভোলা প্রতিনিধি  ১০:৩০ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০

দশ টাকার জন্য মন্দিরের সেবাইতের মৃত্যু

মাত্র ১০ টাকা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়ে ভোলার কেন্দ্রীয় মন্দিরের সেবাইত নির্মল ভট্টাচার্য্য (৬০) মন্দিরের বিগ্রহের সামনেই আত্মহত্যা করেছেন।

মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে পুলিশ ওই সেবাইতের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে।

মৃত নির্মল ভট্টাচার্য্য খুলনা জেলার পাইপগাছা উপজেলার হরিদাস কাঠী গ্রামের বৈদ্যনার্থ ভট্টাচায্যের ছেলে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নিহত সেবাইত প্রায় ২ বছর ধরে ভোলা শহরের খালপাড় সংলগ্ন তরকারি বাজার এলাকার কেন্দ্রীয় শ্রী শ্রী মদন মোহন ঠাকুর জিউর মন্দিরের সেবাইতের দ্বায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে ওই মন্দিরের কর্মরত অঞ্জলী রানী চক্রবর্তীর সাথে ভক্তের দেয়া প্রণামির ১০ টাকা নিয়ে তার কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে তিনি ওই নারীর গায়ে হাত তোলেন। ওই নারীও তাকে পানি ছুড়ে মারেন। এই ঘটনায় অঞ্জলী রানী মন্দির কমিটির কাছে অভিযোগ করেন।

পরে মন্দির কমিটির লোকজন রাত সাড়ে ৮টার দিকে সেবাইত নির্মল ভট্টাচার্য্যের সাথে কথা বলেন। এসময় কিছু লোক তাকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে এবং মারতে উদ্যত হয়। পরে সিদ্ধান্ত হয় এ ঘটনা নিয়ে বুধবার সকালে বসা হবে। এরপর আরতি শেষে মন্দিরের দরজা বন্ধ করে ওই সেবাইত ভেতরে বসে থাকেন। রাত ৯টার দিকে মন্দিরের দরজা খুলে লোকজন দেখতে পায় সেবাইত কলাপসিবল গেটের সাথে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলে আছেন।

ভোলা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এনায়েত হোসেন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

ময়নাতদন্তের জন্য সেবাইতের মরদেহ ভোলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওসি।

এইচআর

 

সমগ্রবাংলা: আরও পড়ুন

আরও