ভোলায় ট্রলারে আটকে তরুণীকে গণধর্ষণ, আটক ৫
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০ | ১৫ চৈত্র ১৪২৬

ভোলায় ট্রলারে আটকে তরুণীকে গণধর্ষণ, আটক ৫

ভোলা প্রতিনিধি ৪:০৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০২০

ভোলায় ট্রলারে আটকে তরুণীকে গণধর্ষণ, আটক ৫

এবার প্রেমের ফাঁদে ফেলে ভোলার চরফ্যাশনে ২২ বছর বয়সী এক তরুণীকে ট্রলারে আটকে রেখে রাতভর গণধর্ষণ করা হয়েছে।

রোববার ভোররাতে বুড়াগৌরঙ্গ নদী থেকে টহলরত কোস্টগার্ডের একটি টিম ওই তরুণীকে উদ্ধার করে। পাশাপাশি ঘটনাস্থল থেকে পাঁচ ধর্ষককে আটক করে।

সকালে আটকদের ভোলার দক্ষিণ আইচা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে কোস্টগার্ড।

আটকরা হলেন— চরফ্যাশন উপজেলার দক্ষিণ আইচা ৬নং ওয়ার্ডের খলিল মিয়ার ছেলে ইউছুফ হাসান (২০), দক্ষিণ আইচা ৫নং ওয়ার্ডের হাকিম দালালের ছেলে সোহেল রানা (২০), চর মানিকা ৩নং ওয়ার্ডের মোকাম্মেল সিকদারের ছেলে ওয়াসেল আহম্মদ সিকদার (২০), চরকচ্ছপিয়া ৪নং ওয়ার্ডের ইসমাঈল ফকিরের ছেলে রিপন ফকির (২০) ও একই গ্রামের আবুল কাশেম হাওলাদারের ছেলে মোরশেদ হাওলাদার (৩৫)।

চরফ্যাশন দক্ষিণ আইচা থানার পুলিশ পরির্দশক (তদন্ত) মিলন কুমার ঘোষ জানান, চরফ্যাশনের ওই তরুণীর সাথে দক্ষিণ আইচা সোহেল রানা দিদারের সাথে মোবাইলে প্রেমের সম্পর্ক হয়। ওই তরুণীর মায়ের চিকিৎসার জন্য প্রেমিক সোহেলের কাছে ৫ হাজার টাকা ধার চায়। ওই টাকা দেয়ার কথা বলে তরুণীকে দক্ষিণ আইচা যেতে বলে।

তিনি জানান, শনিবার বিকালে ওই তরুণ দক্ষিণ আইচা গেলে তাকে সোহেল রানাসহ তিনজন মিলে একটি স্পিডবোটে করে পর্যটন এলাকা চরকুকরী-মুকরীর নারিকেল বাগানে নিয়ে রাত ১০টা পর্যন্ত রেখে গণধর্ষণ করে। এরপর ওই তরুণীকে আরও দুই যুবকসহ মোট ৫ জন মিলে বুড়াগৌরাঙ্গ নদীতে একটি ট্রলারে আটকে রেখে আবারও রাতভর ধর্ষণ করে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, ভোররাতে ভাসমান ট্রালারে ওই তরুণী বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার করতে থাকে। এ সময় ডাক চিৎকার শুনে টহলরত কোস্টগার্ডের একটি টিম তাকে উদ্ধার করে। পাশাপাশি অভিযুক্ত পাঁচজনকে আটক করে।

এ ঘটনায় দক্ষিণ আইচা থানায় ওই তরুণী বাদী হয়ে ৫ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেছে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত প্রায় এক মাস আগে চরফ্যাশনে ঢাকা থেকে স্বামীকে খুঁজতে এসে এক গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার হন।

এসবি

 

সমগ্রবাংলা: আরও পড়ুন

আরও