বেতন ইস্যুতে সাড়ে ৫ ঘণ্টা অবরুদ্ধ বেসিক ব্যাংক এমডি

ঢাকা, বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৬

বেতন ইস্যুতে সাড়ে ৫ ঘণ্টা অবরুদ্ধ বেসিক ব্যাংক এমডি

পরিবর্তন প্রতিবেদক ১২:২৮ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৯

বেতন ইস্যুতে সাড়ে ৫ ঘণ্টা অবরুদ্ধ বেসিক ব্যাংক এমডি

রাষ্ট্রয়াত্ত বেসিক ব্যাংকের স্বতন্ত্র বেতন-কাঠামো বহাল রাখার দাবিতে ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রফিকুল আলমকে প্রায় সাড়ে ৫ ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রেখেছিলেন প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা কর্মচারিরা। এসময় ব্যাংকের এমডি’র কক্ষের সামনে অবস্থান নিয়ে স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো বহাল রাখার দাবি জানান তারা।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত মতিঝিলের সেনা কল্যান ভবনে বেসিক ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে ব্যবস্থাপনা পরিচালককে অবরুদ্ধ করে রাখেন তারা।

বেসিক ব্যাংকের চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন এ মজিদ বলেন, ‘বেসিক ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের স্বতন্ত্র বেতনকাঠামোতে বেতন দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। ব্যাংকটি বড় ধরনের লোকসানে থাকার কারণে বিদ্যমান কাঠামোতে বেতন দেওয়া অসম্ভব হয়ে পড়েছে। তাই বেসিক ব্যাংকের বর্ধিত বেতন কাঠামো বাতিল করা হয়েছে। এখন আন্দোলন করলে কী হবে? এমডি’র পক্ষে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেওয়া সম্ভব হবে না।

এর আগে বেসিক ব্যাংককের কর্মীরা বেতন কমানোর প্রতিবাদে সকালে ব্যাংকটি এমডি রফিকুল আলমকে অবরুদ্ধ করেন।

রোববার বেসিক ব্যাংকের নিজস্ব বেতন কাঠামো বাতিল করে  সব কর্মকর্তার বেতন কমিয়ে ব্যাংকটির মানবসম্পদ বিভাগ থেকে একটি সার্কুলার জারি করা হয়। সার্কুলারটি ব্যাংকটির সব শাখার প্রধানদের কাছেও পাঠানো হয়। চলতি মাসের ২২ তারিখ থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর করার কথা বলা হয় এই সার্কুলারে।

কিন্তু সোমবার এ সিদ্ধান্ত জানাজানি হওয়ার পর সকাল থেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেন কর্মীরা। তারা অবিলম্বে নির্দেশনা বাতিলের দাবিতে এমডির কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেন ও এমডিকে অবরুদ্ধ করেন।

এদিকে ব্যাংকের জারি করা সার্কুলারে বলা হয়েছে, বেসিক ব্যাংক বিগত সাত বছর ধরে ক্রমাগত লোকসানে থাকায় ২০১৩ সালের প্রবর্তিত ব্যাংকের নিজস্ব বেতন কাঠামো ও অন্যান্য সুবিধাদি বাতিল করা হলো। এই সিদ্ধান্ত রবিবার (২২ডিসেম্বর) থেকে কার্যকর হলো।

চিঠিতে বলা হয়, বিগত সাত বছর লোকসান হওয়ায় আগের মতো বেতন দেওয়া সম্ভব হবে না। অন্যান্য রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যাংকের তুলনায় অত্যাধিক বেতন ভাতা চালু আছে বেসিক ব্যাংকে। এই অতিরিক্ত বেতন ভাতা ব্যাংকের পক্ষে বহন করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

চিঠিতে আরো বলা হয়েছে, এখন থেকে বেসিক ব্যাংকের কর্মকর্তারা অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের বাস্তবায়ন অনুবিভাগ কর্তৃক জারিকৃত ‘চাকরি (ব্যাংক, বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান) (বেতন ও ভাতাদি) আদেশ ২০১৫’ এর অনুরূপ কাঠামো অনুযায়ী বেতন পাবেন।

এফএ/এআরই

 

 

অর্থনীতি : আরও পড়ুন

আরও