জাসিনদা হচ্ছেন নিউজিল্যান্ডের ১৫০ বছরে সবচেয়ে কমবয়সী প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

জাসিনদা হচ্ছেন নিউজিল্যান্ডের ১৫০ বছরে সবচেয়ে কমবয়সী প্রধানমন্ত্রী

পরিবর্তন ডেস্ক ৭:১১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০১৭

print
জাসিনদা হচ্ছেন নিউজিল্যান্ডের ১৫০ বছরে সবচেয়ে কমবয়সী প্রধানমন্ত্রী

নিউজিল্যান্ডে ভোট গ্রহণের ২৬ দিন পর নির্ধারণ হয়েছে কে হতে যাচ্ছেন দেশটির পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী। লেবার পার্টি, নিউজিল্যান্ড ফার্স্ট পার্টি ও গ্রীন পার্টির সমর্থনে একটি কোয়ালিশন সরকার হতে যাচ্ছে। সেখানে লেবার পার্টির জাসিনদা আরডার্ন হবেন পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী। ৩৭ বছর বয়সী এই নারী হবেন দেশটির সবচেয়ে কমবয়সী প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া তিনি দেশটির তৃতীয় নারী প্রধানমন্ত্রী হবেন। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

.

নিউ জিল্যান্ডে গত তিন মাস বিরোধীদলের নেতৃত্বে ছিলেন আরডার্ন। দেশটিতে গত মাসের সাধারণ নির্বাচনে সরকার গঠনের জন্য লেবার কিংবা ন্যাশনাল কোনো দলই সরকার গঠনের মত সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি।

এ অবস্থায় ছোট্ট দল নিউ জিল্যান্ড ফার্স্ট পার্টির সমর্থনে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হতে চলেছে লেবার পার্টি। নতুন জোট সরকারকে সমর্থন দেবে গ্রিন পার্টিও।

নিউজিল্যান্ডের গত ১৫০ বছরের ইতিহাসে তিনি হচ্ছেন সবচেয়ে কম বয়সী প্রধানমন্ত্রী।

৩৭ বছর বয়সী সাবেক এই মর্মন ধর্মানুসারী ও সৌখিন ডিজে কয়েকমাস আগে হয়তো কল্পনাও করতে পারতোনা তার দল এমন ফল করতে পারে এবং নিজে প্রধানমন্ত্রী হতে পারে।

বৃহস্পতিবার জাসিনদা তার পরিকল্পনা নিয়ে বলতে গিয়ে বলেন, ‘নারী হিসেবে এবং নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আমার অনেক উচ্চাকাঙ্খা আছে। আমরা বড় কিছু অর্জন করতে চাই যেমন সমান মজুরী, ঘরে এবং ঘরের বাইরে নারীর কাজকে সম্মান করা...এগুলো আমার হৃদয়ের খুব কাছে রাখি।’

শুক্রবার তিনি আরও জানান তার সরকার একটি জলবায়ু কমিশন গঠন করবে যা আগামী ২০৫০ সালের মধ্যে গ্যাস নি:সরন শূণ্যে নামিয়ে আসবে।

এদিকে নিউজিল্যান্ড ফার্স্ট দলের উইন্সটন পিটার্সকে উপ প্রধানমন্ত্রীর পদের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। তবে তিনি এখনো নিশ্চিত করেননি সেই দায়িত্ব পালন করবেন কি করবেন না।

এসবিআই/

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad