এবার ইরানের আইসিটি মন্ত্রীর ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২০ | ১৬ মাঘ ১৪২৬

এবার ইরানের আইসিটি মন্ত্রীর ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

পরিবর্তন ডেস্ক ১:২৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০১৯

এবার ইরানের আইসিটি মন্ত্রীর ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

ইরানের তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) মন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ অযারি জাহরোমির বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে আমেরিকা।

মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয়ের বিদেশি সম্পদ নিয়ন্ত্রণ বিভাগ শুক্রবার জানিয়েছে, ইরানব্যাপী ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ করে দেয়ার কারণে সেদেশের আইসিটি মন্ত্রীর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলো।

সম্প্রতি জ্বালানী তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ইরানের জনগণের একাংশ ব্যাপক বিক্ষোভ-তৎপরতা চালালে দেশে ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয়।

মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয় জানায়, এ নিষেধাজ্ঞার ফলে ইরানের এ মন্ত্রী আমেরিকা সফরে যেতে পারবেন না এবং আমেরিকায় তার কোনো সম্পদ থাকলে তা জব্দ করা হবে।

এর আগেও বেশ কয়েকজন ইরানি কর্মকর্তার ওপর এমন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে আমেরিকা। জবাবে তেহরান বলেছে, ইরানি কর্মকর্তাদের কোনো সম্পদ আমেরিকায় নেই এবং ওই দেশ সফরে যাওয়ার কোনো ইচ্ছাও তাদের নেই।

এর আগে ইরানের পার্লামেন্টের জাতীয় নিরাপত্তা ও পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক কমিটির সদস্য আবুলফজল হোসেইনবেগি গত বুধবার বলেছিলেন, একদল দুর্বৃত্ত ইন্টারনেট সংযোগের অপব্যবহার করে তাদের নাশকতামূলক তৎপরতার স্থান ও সময় সম্পর্কে পরস্পরের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছিল বলে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছন্ন করে দেয়া হয়েছে।

আবুল ফজল জানান, সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে এবং বিষয়টি নিছক আইসিটি মন্ত্রীর নিয়ন্ত্রণে নেই।

ইরানে গত ১৫ নভেম্বর রাত থেকে জ্বালানী তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে একদল লোক দেশের বিভিন্ন শহরে বিধ্বংসী তৎপরতা চালায়। তারা ঘরবাড়ি, দোকানপাট, ব্যাংক, হাসপাতাল ইত্যাদি স্থানে হামলা চালিয়ে সেগুলোতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘর্ষে বেশ কিছু মানুষ হতাহত হয়।

ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র ডেপুটি কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী ফাদাভি গতকাল (শুক্রবার) জানিয়েছেন, মাত্র ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দেশের সহিংসতা নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে এবং এখন দেশের পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

এমএফ/

 

এশিয়া: আরও পড়ুন

আরও