নিজেদের মুখে হাসি ফুটানোর চেষ্টায় ব্যস্ত শেরপুরের কৃষকরা

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭ | ৯ কার্তিক ১৪২৪

নিজেদের মুখে হাসি ফুটানোর চেষ্টায় ব্যস্ত শেরপুরের কৃষকরা

শেরপুর প্রতিনিধি ৩:৫৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৯, ২০১৭

print
নিজেদের মুখে হাসি ফুটানোর চেষ্টায় ব্যস্ত শেরপুরের কৃষকরা

সাম্প্রতিক বন্যার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে আগাম শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত সময় পার করছে শেরপুরের চরাঞ্চলের কৃষকরা। বিশেষ করে সদর উপজেলার ৬ ইউনিয়নের লক্ষাধিক কৃষক প্রচণ্ড গরম উপেক্ষা করে আগাম সবজির ক্ষেত নিড়ানিসহ নানা পরিচর্যা করে যাচ্ছেন। তাদের লক্ষ্য আগাম শীতকালীন ফুলকপি, বাঁধা কপি, টমেটো, শিম, মূলা, শসা, বেগুন, লাউ, ঢেঁড়স নানা সবজি বাজারে তুলে একটি বাড়তি দাম পাওয়া।

শেরপুর জেলা সদরের সীমারেখা বরাবর বয়ে যাওয়া পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের বুকে জেগে উঠা চরের মাঠ এবং ওই নদী অববাহিকায় এখন দেখা মিলবে বিভিন্ন ধরনের সবজি ক্ষেতের। স্থানীয় কৃষকরা প্রচণ্ড গরম ও তাপদাহ সহ্য করে সবজি পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। এখানকার উৎপাদিত সবজি জেলার চাহিদা মিটিয়ে রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় পাঠানো হয়। ফলে প্রতি বছর ওইসব গ্রামের কৃষকদের এক ধরনের ভরসার উৎস শীতকালীন আগাম সবজি।

চরপক্ষিমারি ইউনিয়নের ডাকপাড়া গ্রামের কৃষক মুক্তার আলী জানান, তার এক একর জমির লাউ ও শসা ক্ষেত বন্যায় নষ্ট হয়ে গেছে। এতে তার লাখ টাকার ক্ষতি হয়। তাই সে বন্যার পানি নেমে যাওয়ার সাথে সাথেই ক্ষতি পোষাতে শীতের আগাম সবজি চাষে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে।

একই গ্রামের রফিক জানায়, বন্যায় তার এক একর জমির চিচিঙ্গার ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া বন্যার পানিতে শিম ক্ষতও নষ্ট হয়েছে। এসবের ক্ষতি পোষাতে তিনি আগাম বিভিন্ন সবজির চাষ শুরু করেছেন।

চুনিয়ার চর গ্রামের রহিমা বেগম বলেন, বন্যার কারণে ক্ষেতে প্রচুর বালির স্তর পড়েছে। তাই ওই ক্ষেতে আপাতত কোনো ধান ফলন হবে না। তাই এখানে ডেঙ্গা ও লাল শাঁকের আবাদ করছি। তা থেকে যদি কিছু টাকা আয় হয়, তবে ক্ষতি কিছুটা পোষানো যাবে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক মো. আশরাফ উদ্দিন জানায়, জেলায় এবার শীতকালীন সবজি চাষ প্রায় ৮ হাজার হেক্টর জমিতে লক্ষ্যমাত্রা ধরা হলেও ইতোমধ্যে ৩ হাজার ৮১৫ হেক্টর জমিতে শীতকালীন সবজি রোপণ করা হয়েছে। আগামী মাসের মধ্যে সবজি রোপণ শেষ হবে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবার জেলায় সবজির বাম্পার ফলনের আশা রয়েছে।

টিএইচ/জেআই

print
 

আলোচিত সংবাদ

nilsagor ad